শনিবার, মার্চ ২, ২০২৪ || ৯:০৫:২৭ পূর্বাহ্ণ

লাখ লাখ জিমেইল অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলছে গুগল

অনলাইন ডেস্ক : লাখ লাখ অব্যবহৃত জিমেইল আগামী মাস থেকে মুছে ফেলার ঘোষণা দিয়েছে গুগল। দুই বছর ধরে অচল অ্যাকাউন্টগুলো এর আওতায় পড়বে। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট অ্যান্ড্রয়েড অথরিটির প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়।

এক ব্লগপোস্টে গুগলের প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট রুথ ক্রচেলি বলেন, অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ। অনেক দিন ধরে অব্যবহৃত অ্যাকাউন্টে নিরাপত্তা বিঘ্ন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কারণ ভুলে যাওয়া বা অব্যবহৃত অ্যাকাউন্টে প্রায়ই পুরনো বা পুনঃব্যবহৃত পাসওয়ার্ড যুক্ত থাকে।

এসব অ্যাকাউন্টে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন সেটআপ থাকে না এবং গ্রাহকরা অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা যাচাই করে না। অর্থাৎ এসব অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা প্রায়ই দুর্বল হয়। আর স্ক্যামসহ পরিচয় চুরির মতো বিভিন্ন ক্ষতিকর কাজে এসব ব্যবহৃত হতে পারে।

যেসব অ্যাকাউন্ট দুই বছরে ধরে অব্যবহৃত রয়েছে ডিসেম্বর থেকে সেগুলো ডিলিট করা হবে। সেই সঙ্গে গুগল ওয়ার্কস্পেস যেমন জিমেইল, ডকস, ড্রাইভ, মিট, ক্যালেন্ডার ও গুগল ফটোজের কনটেন্টও ডিলিট করে দেওয়া হবে।

শুধু ব্যক্তিগত গুগল অ্যাকাউন্টের জন্য নীতিটি কার্যকর হবে। স্কুল বা ব্যবসায়িক অ্যাকাউন্টের জন্য তা হবে না।

অ্যাকাউন্ট ডিলিটের প্রক্রিয়া পর্যায়ক্রমে শেষ হবে। প্রথমে যেসব অ্যাকাউন্ট তৈরির পর আর ব্যবহার করা হয়নি, সেগুলো ডিলিট করা হবে। এসব অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীর ইমেইল অ্যাড্রেসে অনেক নোটিফিকেশন পাঠানো হবে।

অ্যাকাউন্ট চালু রাখতে যা করতে হবে :

অ্যাকাউন্ট চালু রাখার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো- প্রতি দুই বছরে অন্তত একবার সাইন-ইন করা। গুগল অ্যাকাউন্টে সাইন-ইন করা থাকলে সেগুলোকে সক্রিয় ভাবা হয়। এ ছাড়া সাইন-ইনের পর অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়া বন্ধ করতে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া যায়-

১. কোনো ইমেইল পড়া বা সেন্ড করা।

২. গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করা।

৩. ওই অ্যাকাউন্ট দিয়ে ইউটিউব ভিডিও দেখা।

৪. গুগল প্লে স্টোর থেকে কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করা।

৫. গুগল সার্চ ব্যবহার করা।

৬. গুগলের সাইন-ইন ব্যবহার করে থার্ড পার্টি অ্যাপ বা সেবায় সাইন ইন করা।

এ ছাড়া যেসব অ্যাকাউন্টে গুগলের সাবস্ক্রিপশন কেনা রয়েছে, সেগুলো সক্রিয় হিসেবে বিবেচনা করবে এই প্ল্যাটফরম।

খবরটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *