1. selimsavar@gmail.com : khobar desk :

সাভারে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২৬ বার পড়েছেন
নিহত সাজ্জাদ হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার : ঢাকার সাভারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে ছুরিকাঘাতে সাজ্জাদ হোসেন নামের এক যুবক নিহত হয়েছে।

শুক্রবার মধ্যরাত আনুমানিক সাড়ে ১১ টার দিকে সাভার পৌর এলাকার বক্তারপুর কোটবাড়ি বালির মাঠ মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাজ্জাদ হোসেন (২৩) রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার রায়েরবাজার ছাতা মসজিদ এলাকার শাহীন ওরফে নুরা মিয়ার ছেলে। সে সাভার পৌর এলাকার আরাপাড়া মহল্লায় কফিল উদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থেকে হেমায়েতপুর এলাকায় একটি ফার্নিচারের দোকানে বার্নিশ (রং) মিস্ত্রির কাজ করতেন।

নিহত সাজ্জাদ রাজাশন এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ে ফাতেমা আক্তারকে প্রায় ছয় বছর আগে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে সিদরাতুল মুনতাহা সাফা নামে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। পারিবারিক কলহের কারনে গত দুই বছর যাবত পূর্ব পরিচিত ইলেকট্রিক মিস্ত্রি বাপ্পী মিয়ার আশ্রয়ে ভাড়া বাসায় আলাদা থাকতেন তিনি। পাশাপাশি বাপ্পী মিয়ার সঙ্গে বিভিন্ন সময় পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রেদোয়ান মোল্লার অনুসারী হিসেবে নিয়মিত রাজনৈতিক প্রোগ্রামে অংশ নিতেন।

নিহতের খালু নজরুল ইসলাম জানান, সাজ্জাদ ফার্নিচারের দোকানে কাজ করতো। তার বন্ধুদের মাধ্যমে খবর পাই, বক্তারপুর কোটবাড়ি বালির মাঠে কে বা কারা তাকে ছুরি মেরেছে। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে মারা যায়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও সাজ্জাদকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া বাপ্পি মিয়া বলেন, ‘শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে সাভার পৌরসভার বক্তারপুর কোটবাড়ি বালির মাঠে আমাদের পূর্ব পরিচিত জুয়েল, মাসুম, আলামিন, সাজ্জাদসহ কয়েকজন আড্ডা দিচ্ছিল। ওই সময় তাদের পাশ দিয়ে রিক্সাযোগে যাওয়ার পথে জালাল বাবুর্চির ছেলে আলামিন (২৫) ও রাব্বি ওরফে মুরগি রাব্বি (২২) তাদের দেখে জিজ্ঞেস করে তোরা কারা.? এ কথা বলার পর রিকশায় থাকা আলামিন ও রাব্বিকে নামিয়ে তল্লাশি চালিয়ে চর-থাপ্পড় মারা হয়।

এ সময় ওই দুজনের কাছে একটি ছুরি পাওয়া গেলে ক্ষমা চেয়ে আলামিন ও রাব্বি ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এর দেড় ঘন্টা পর ওই এলাকার সারোয়ার ভান্ডারীর ছেলে স্বপনের (৩৫) নেতৃত্বে পুনরায় আলামিন ও রাব্বিসহ আরো ৬/৭ জন ঘটনাস্থলে আসে। এরপর কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সাজ্জাদকে ছুরিকাঘাত করে তারা সবাই পালিয়ে যায়। পরে দ্রুত উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শাহ্জামান বলেন, খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন :